খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় সেনা অভিযান


বিপুল পরিমান অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার, অস্ত্রসহ আটক ১

আরএইচডিএএল.কম : সোমবার ০৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৫ :

Picture3

খাগড়াছড়ি জেলার দীঘিনালার দুর্গম পার্বত্য এলাকায় গোলাগুলির পর পাঁচটি অস্ত্র ও গুলিসহ একজনকে আটক করেছে সেনাবাহিনী। আটককৃত ব্যাক্তি বড়শোভা চাকমা(৪২) (নান্টু) রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার বাঘাইহাট এলাকার বাসিন্দা বলে জানাগেছে। আটক নান্টু পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির এম এন লারমা গ্রুপের নেতা বলে সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

তথ্য সূত্রে জানা যায়, রবিবার সন্ধ্যা ৬ টা থেকে বোয়ালখালী ইউনিয়নের দূর্গম সাধকছড়া এলাকায় দীঘিনালা জোনের জোন কমান্ডারের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে প্রায় ১শত রাউন্ড গুলি বিনিময় হয়, পরদিন সোমবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্বারসহ একজন সশস্ত্র সন্ত্রাসীকে আটক করেছে।

সেখান থেকে একটি মেশিনগান, দুটি সাব মেশিনগান, দুটি এসএলআর, একটি গ্রেনেড, নয়টি ম্যাগাজিন, সাড়ে তিনশ’ গুলি, আটটি মোবাইল ফোন ও সেনাবাহিনীর ছয় সেট পোশক উদ্ধার করা হয়েছে বলে সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়।

জনসংহতি সমিতির এম এন লারমার গ্রুপের একটি দল ভারী অস্ত্র নিয়ে সন্তু লারমা গ্রুপের ওপর হামলার পরিকল্পনা করছে খবর পেয়ে রোববার সন্ধ্যায় ওই এলাকা ঘেরাও করে সেনাবাহিনী।

সেনাসূত্রে জানা যায় সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড পরিচালনার জন্য তারা সেখানে জড়ো হয়েছিল। সাধারণ জনগণ যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সে দিক বিবেচনা করে সেনাবাহিনী আরও বড় ধরনের সশস্ত্র অভিযান চালায়নি।

দীঘিনালা থানার ওসি মো. মিজানুর রহমান জানান, তারা অভিযানের কথা শুনেছে, তবে আটক কাউকে পুলিশের হাতে বুঝিয়ে দেওয়া হয়নি। অস্ত্র ও আটক ব্যক্তিকে বুঝে পেলে মামলা করা হবে।

সোহেল রানা দীঘিনালাঃ-খাগড়াছড়ির দীঘিনালার দূর্গম সাধকছড়া এলাকায় দীঘিনালা জোনের সেনাবাহিনীর বিশেষ অভিযানে বিপুল পরিমান অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্বারসহ একজনকে আটক করা হয়েছে।
তথ্য সূত্রে জানা যায়, রবিবার সন্ধ্যা ৬ টা থেকে বোয়ালখালী ইউনিয়নের দূর্গম সাধকছড়া এলাকায় দীঘিনালা জোনের জোন কমান্ডারের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে প্রায় ১শত রাউন্ড গুলি বিনিময় হয়, পরদিন সোমবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্বারসহ একজন সস্ত্রশ সন্ত্রাসীকে আটক করেছে।  আটককৃত ব্যাক্তি বড়শোভা চাকমা(৪২) (ওরফে নান্টু) রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলা বাঘাইহাট এলাকার বাসিন্দা বলে জানাগেছে।
উদ্ধাকৃত সরাঞ্জমের মধ্যে রয়েছে এইচএমজি-১টি, এসএমজি-২টি, এসএলআর-২টি, এসএমজি-২টি, গ্রেনেড-১টি,গোলাবারুদ  প্রায় সাড়ে ৪শ, মোবাইল ফোন -৮টি, আর্মি পোশাক- ৬সেট, অস্ত্রের ম্যাগজিন ২২টি।
আটককৃত  বড়শোভা চাকমা (৪২) নিজেকে জেএসএস এমএন লারমা গ্রুফের সদস্য বলের দাবী করেন।
দীঘিনালা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ২৫ জনের একটি সস্ত্রশ গ্রুফ ট্রেনিং এর জন্য সাধকছাড়া এলাকাতে অবস্থান করে। সেনাবাহিনীর বিশেষ সূত্রে খরব পেয়ে অভিযান চালিয়ে ভারি আগ্নেঅস্ত্রসহ একজনকে আটক করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

Add Comment