রাঙ্গামাটিতে শ্রমিক লীগের বিক্ষোভ সমাবেশ


মিথ্যার বেসাতি আর মানুষ পুড়িয়ে বিএনপি-র সন্ত্রাসী আন্দোলন সফল হবে না

সংবাদ বিভাগ, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ :

Dada

মিথ্যার বেসাতি করে বিএনপি-র রাজনীতি যেমন ইতিমধ্যে জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে, তেমনি বোমা মেরে গাড়ি ও নিরীহ মানুষ জ্যান্ত পুড়িয়ে মারার কারণে খালেদা জিয়া খুব শীঘ্রই রাজনৈতিকভাবে দেউলিয়া হবেন। খালেদা জিয়া এসএসসি পরীক্ষায় শুধুমাত্র একটি ছাড়া সব ক’টি বিষয় ফেল করেছিলেন, কাজেই এসএসসি পরীক্ষা নয়, শিক্ষার গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা তার কাছে আশা করা বৃথা। মেজর (অব) হাফিজ উদ্দিনের মত যে দলের উর্ধতন নেতা বলতে পারেন ‘কীসের পরীক্ষা – কীসের কী’, সেখানে এই দলের ক্ষমতা লিপ্সার কাছে দেশের শুধু শিক্ষার্থী নয়, পুরো জনগণই তুচ্ছ। তাইতো তারা দেশের শিক্ষা ব্যবস্থাকে ধ্বংস করার মহোৎসবে মেতে পরীক্ষা থেকে বঞ্চিত করতে চাইছে ১৫ লাখ এসএসসি পরীক্ষার্থীকে।

আজ বুধবার বিকাল সাড়ে চারটায় রাঙ্গামাটি শহরের বনরূপাস্থ আলিফ মার্কেটের সামনে রাঙ্গামাটি জেলা শ্রমিক লীগ আয়োজিত এক বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার উল্লিখিত কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, খালেদা জিয়াকে নাকি গুলশানের অফিসে সরকার অবরুদ্ধ করে রেখেছে, আমরা টেলিভিশনে দেখি তিনি নিত্যদিনের মত নতুন নতুন দামী শাড়ি ও সাজ-গোজ করে দিব্যি আরামে ঐ বাসায় রয়েছেন, অথচ কোন অবরুদ্ধ মানুষ ঐভাবে থাকতে পারে না। খালেদা জিয়া অবরোধের ডাক দিয়ে নিজেকেই অবরুদ্ধ করে রেখেছেন। দেশবাসী মুক্তভাবে চলাফেরা করছেন, আর বিএনপি-জামাতের সন্ত্রাসীরা জনগণকে মুক্ত চলাফেরায় বাধা দিতে মানুষকে পুড়িয়ে মারছে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে দীপংকর তালুকদার বলেন, খালেদা জিয়ার মিথ্যার বেসাতির উদাহরণ অনেক। অবরুদ্ধ খালেদার খোঁজ-খবর নিতে ভারতের বিজেপি-র সভাপতি অমিত শাহ নাকি সরাসরি তাকে টেলিফোন করেছিলেন, পরে জানা গেল তা একেবারে মিথ্যা। একই সময়ে প্রচার করা হলো যুক্তরাষ্ট্রের ছয় কংগ্রেসম্যান খালেদাকে অবরুদ্ধ করার নিন্দা জানিয়ে চিঠি দিয়েছেন, পরে জানা গেল তাও ভুয়া, স্বাক্ষর জালিয়াতি করে ঐ চিঠি দেওয়া হয়েছিল। এতে কিন্তু আন্তর্জাতিকভাবে শুধু বিএনপি-র নয়, গোটা দেশের ভাবমূর্তি চরমভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে। তিনি আরো বলেন, ২০ দলের ঘোষিত ৩০ মার্চের মধ্যে সরকার পতনের আলটিমেটাম বুমেরাং হয়ে তাদেরই করুণভাবে পতন হবে।

তিনি বলেন, আন্দোলনের নামে বিএনপি-র চলমান সন্ত্রাসে সরকারের পতন হবে না। অনেকে সংলাপের কথা বলেন। সংলাপ কার সাথে? সন্ত্রাসের কাছে মাথা নত করে সংলাপ? তা হবে না, সন্ত্রাস করে সংলাপ নয়, কোন দাবি-ই আদায় করা যাবে না। একজন মায়ের অনুভূতি নিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কোকোর মৃত্যুতে খালেদা জিয়ার অফিসে গিয়েছিলেন, কিন্তু তালা মেরে গেইট বন্ধ করে ঢুকতে না দিয়ে সংলাপের গেইটও বন্ধ করেছেন খালেদা জিয়া।

LL

বিক্ষোভ সমাবেশে শ্রমিক লীগের সভাপতি বিদ্যুৎ জ্যোতি চাকমার অনুপস্থিতিতে সহ-সভাপতি পরেশ বড়ুয়ার সভাপতিত্বে ও সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কাশেমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও রাঙ্গামাটি সদর উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান হাজী মো: মুছা মাতব্বর, রাঙ্গামাটি সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হৃদয় বিকাশ চাকমা, মহিলা লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক জেবুন্নেসা, শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক সামশুল আলম ও ছাত্র লীগের সভাপতি শাহ এমরান রোকন। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মাহবুবুর রহমান, চিং কিউ রোয়াজা, রুহুল আমিন, রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা, সাধারণ সম্পাদক হাজী মো: মুছা মাতব্বরসহ জেলা আওয়ামী লীগের উর্ধতন নেতৃবৃন্দ।

Print Friendly, PDF & Email

Add Comment