রাজধানীতে পার্বত্য চট্টগ্রাম কমপ্লেক্স নির্মাণের ভিত্তিফলক উন্মোচন

ঢাকা রিপোর্ট –

CHT-Complex

আজ রোববার ৮ মে রাজধানী ঢাকার ৩৩ বেইলী রোডে পার্বত্য চট্টগ্রামের ঐতিহ্যমন্ডিত “পার্বত্য চট্টগ্রাম কমপ্লেক্স” নামে একটি নান্দনিক ভবনের ভিত্তিফলক উন্মোচন করা হয়। এর ভিত্তিতে আয়োজিত অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পার্বত্য চট্টগ্রাম কমপ্লেক্স -এর ভিত্তিফলক উন্মোচন করেন।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কেবলমাত্র ভূমি সংস্কার ব্যতীত পার্বত্য শান্তিচুক্তির অধিকাংশই বাস্তবায়িত হয়েছে। চুক্তি অনুযায়ী চারটি ব্রিগেড ব্যতীত অধিকাংশ সেনা ক্যাম্পও সরিয়ে নেয়া হয়েছে। সরকার ভূমি সংস্কারের জন্য পার্বত্য চট্টগ্রাম ভূমি কমিশন একাধিকবার গঠন করলেও কমিশনের কাজ সন্তোষজনকভাবে এগোয়নি। কারণ সেখানে কিছুটা অবিশ্বাস এবং দ্বিধা-দ্বন্দ্ব কাজ করছিল। আলাপ আলোচনার মাধ্যমেই এই অবস্থা থেকে উত্তরণ সম্ভব বলে উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রবিবার সকালে রাজধানীর বেইলী রোডে অফিসার্স ক্লাবের পার্শ্ববর্তী স্থানে পার্বত্য চট্টগ্রাম কমপ্লেক্স নির্মাণের ভিত্তিফলক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে এ কথা বলেন।

১ দশমিক ৯৪ একর জমির ওপর নির্মাণাধীন এই কমপ্লেক্সের ব্যয় ধরা হয়েছে ১০৬ কোটি টাকা। কমপ্লেক্সটিতে দেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের পাহাড়ি অঞ্চলটির স্বাতন্ত্র্য তুলে ধরার পাশাপাশি পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বা প্রতিমন্ত্রীর বাসভবন, আঞ্চলিক পরিষদের চেয়ারম্যান, তিন পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও তিনজন সার্কেলপ্রধানের ঢাকায় অবস্থানের সময় থাকার ব্যবস্থা থাকবে। কমপ্লেক্সে একটি সাধারণ বিশ্রামাগারও থাকবে, যেখানে পার্বত্য অঞ্চলের মানুষ যখন খুশি এসে বিশ্রাম নিতে পারবেন। এ ছাড়া সামান্য ভাড়ায় তাঁরা তিন দিন তিন রাতের জন্য রুম ভাড়াও নিতে পারবেন। থাকবে পাহাড়ি খাওয়াদাওয়ারও সুব্যবস্থা। থাকবে একটি মিলনায়তন, প্রশাসনিক ভবন, মিউজিয়াম ও লাইব্রেরি। পার্বত্য চট্টগ্রাম কমপ্লেক্সটি নির্মিত হবে পাহাড়িদের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের আদলে।

Print Friendly, PDF & Email

Add Comment